নগর স্হলবন্দর সহ সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার - মোহাম্মদ জুবাইদ হুসেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, সেপ্টেম্বর ১২, : ১২ সেপ্টেম্বর:--আজ বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকমিশনার ধর্মনগর মহকুমার ইয়াকুব নগর ভারত বাংলাদেশ সিমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেন।রবিবার সকালে বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকমিশনার মহাম্মদ জুবাইদ হোসেন উত্তর জেলার কালাছড়া ব্লকাধীন ভাগ‍্যপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ইয়াকুব নগর সিমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেন। উনার সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিসিএম মানিক চক্রবর্তী সহ জেলার

প্রশাসনিক আধিকারিক গন।

এদিকে ডেপুটি হাইকমিশনার আজ সীমান্ত এলাকার ইয়াকুব নগরের ভারত বাংলাদেশ সীমান্তের কাকরি ছড়ার উপর সেতুটিও পরিদর্শন করেন।এই এলাকা দিয়ে বাংলাদেশের সাথে ভারতের আমদানি রপ্তানী হয়। কিন্তু এই কাকরি ছড়ার উপর সেতুটি অবস্তা দীর্ঘদিন যাবত বেহাল দশা।সেতুটি বেহাল দশা হবার কারনে দীর্ঘ দিন যাবত আমদানি রপ্তানী করতে সমস‍্যা হয়। মাল বোঝাই গাড়ি গুলি সেতু পারাপার হতে পারছে না। বেশ কয়েক বছর পূর্বে ভারত সরকার এই সিমান্ত এলাকার সেতুটি সংস্কার করার কাজ শুরু করেছিল। কাজ শুরু করার পর বাংলাদেশের বিজিবি এই সেতূ সংস্কারের কাজে বাঁধা দেয়। ফলে সেতু সংস্কারের কাজ বন্ধ হয়ে পড়ে। এদিন বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার বেহাল সেতুটি পরিদর্শন করেন। পাশাপাশি বাংলাদের ডেপুটি হাই কমিশনার মহাম্মদ জুবাইদ হোসেন স্থানীয় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, তিনি উওর ত্রিপুরা পরিদশনে এসেছেন। এরই অঙ্গ হিসাবে এই স্থল বন্দরটিও পরিদর্শন করছেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উওরে তিনি আরো বলেন, ইয়াকুব নগরের এই স্থল বন্দরের দুই দেশের মধ‍্যে সেতুটি খুব পুরানো। দুই দেশের সংলিষ্ট কতৃপক্ষ এই ব‍্যাপারে বসে সমস‍্যা সমাধান করা হবে। প্রসঙ্গত, ইয়াকুব নগর সিমান্তের এই স্থল বন্দর দিয়ে দুই দেশের মধ‍্যে বিভিন্ন মাল পত্র আমদানি রপ্তানী করা হয়। এই দুই দেশের সিমান্ত এলাকার ভারতের তার কাটার বেড়ার পড়ে ভারতের সিমান্তে একটি সেতূ রয়েছে। কিন্তু সেতূ বর্তমানে বেহাল দশা। সেতুটি বেহাল দশা হবার ফলে দুই দেশের মালপত্র আমদানি রপ্তানী করতে গিয়ে সমস‍্যায় পড়তে হচ্ছে আমদানি রপ্তানী ব‍্যাবসার সাথে যুক্ত ব‍্যাবসীদের।মূলত ইয়াকুব নগর স্হলবন্দর সহ সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেন বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার।


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.