পদোন্নতিতে বয়স অতিক্রান্তদের আবেদন শিথিলে কোর্টের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, আগষ্ট ২৮, : ত্রিপুরা পুলিশ সার্ভিস গ্রেড টুতে পদোন্নতির ক্ষেত্রে উর্দ্ধতম বয়স অতিক্রান্ত ইন্সপেক্টর অব পুলিশের বয়সের উর্ধ্বসীমা শিথিল করার আবেদন বিবেচনা করার জন্য রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে মাননীয় উচ্চ আদালত। ২৭জন পুলিশ ইন্সপেক্টরের দায়ের করা রিট মামলায় আজ আদালতের মাননীয় বিচারপতি অরিন্দম লোধ উপরোক্ত আদেশ প্রদান করেছেন।

উল্লেখ্য, ত্রিপুরা পুলিশ সার্ভিস রুলস, ১৯৬৭ মোতাবেক পুলিশের ইন্সপেক্টর ও টিএসআরের সুবেদারদের টিপিএস ডে টুতে পদোন্নতির সুযোগ রয়েছে। টিপিএস রুলস অনুযায়ী, পুলিশ ইন্সপেক্টর পদে পাঁচ বছরের ন্যূনতম অভিজ্ঞতা, স্নাতক ডিগ্রি, ৫৫ বছর অতিক্রম না করলে পর টিপিএস গ্রেড টুতে পদোন্নতির জন্য বিবেচনার সুযোগ রয়েছে। রাজ্যে পদোন্নতির প্রক্রিয়া বিগত কয়েক বছর ধরে স্থগিত ছিল।

২০১৩ সনে টিপিএস গ্রেড টুতে পুলিশ ইন্সপেক্টরদের সর্বশেষ পদোন্নতি হয়েছিল। ইদানীং রাজ্য সরকার বিভিন্ন দপ্তরে পদোন্নতির ক্ষেত্রে অচলাবস্থা নিরসনে অ্যাডহক (টিপিএস গ্রেড -২) পদোন্নতির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই মোতাবেক পুলিশ ইন্সপেক্টরদের মধ্যে থেকে ৩৭জনকে টিপিএস গ্রেড টুতে পদোন্নতির জন্য বাছাই করার জন্য প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। রিট আবেদনকারী ২৭জন পুলিশ সুবিবেচনা ইন্সপেক্টর ইতিমধ্যে ৫৫বছর পূর্ণ করায় পদোন্নতির জন্য তারা বিবেচিত হবার সুযোগ বঞ্চিত হবেন। পুলিশ ইন্সপেক্টর টিপিএস রুলস-এর ৩৪ নং ধারা অনুযায়ী বয়সসীমা শিথিল করার জন্য পুলিশ মহানির্দেশকের কাছে আবেদন করেন। মহানির্দেশকের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্র দপ্তরে সুপারিশ টিপিএস পাঠানো হয়, টিপিএস রুলসের ৩৪ ধারা অনুযায়ী ৩৩জন পুলিশ ইন্সপেক্টরের ক্ষেত্রে বয়সের উর্দ্ধসীমা শিথিল করে তাদের টিপিএস গ্রেড টুতে পদোন্নতির সুযোগ দেবার জন্য। কিন্তু স্বরাষ্ট্র দপ্তর এ ব্যাপারে কোনও ইতিবাচক সাড়া দেয়নি। এই পরিপ্রেক্ষিতে ২৭ জন পুলিশ ইন্সপেক্টর রিট মামলা দায়ের করেন। রিট মামলার শুনানিতে আবেদনকারীদের তরফে বলা হয়,অতীতে বিভিন্ন সময় টিপিএস রুলস ৩৪ মোতাবেক পদোন্নতির ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। ২০১০সনের উদাহরণ নির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়। রাজ্য সরকার ২০১০ সনে পুলিশ ইন্সপেক্টর থেকে টিপিএস গ্রেড টুতে পদোন্নতির ক্ষেত্রে বয়স, শিক্ষাগত যোগ্যতা, ন্যূনতম অভিজ্ঞতায় ছাড় দিয়েছিলো। আবেদনকারীদের বয়সের ঊর্ধ্বসীমা আবেদনের ছাড়ের সুবিবেচনা সাপেক্ষে পদোন্নতি প্রক্রিয়া স্থগিত রাখার আবেদন করা হয়। অ্যাডভোকেট জেনারেল এস এস দে আবেদনকারীদের আবেদনের তীব্র বিরোধিতা করেন। দুতরফের সওয়াল-জবাব শেষে প্রদত্ত রায়ে মাননীয় উচ্চ আদালত বলেছে, আবেদনকারীরা রাজ্য সরকারের কাছে টিপিএস রুলস ৩৪ মোতাবেক বয়সের উর্ধ্বসীমার ক্ষেত্রে ছাড়ের আবেদন পুনরায় জানাবে এবং রাজ্য সরকার আবেদন বিবেচনা করে নিস্পত্তি করবে দ্রুততার সাথে সাতদিনের মধ্যে এবং নিষ্পত্তি সাপেক্ষে টিপিএস গ্রেড টুতে পদোন্নতি প্রক্রিয়া স্থগিত থাকবে। পুলিশ ইন্সপেক্টরদের হয়ে মামলা লড়েছেন বরিষ্ঠ আইনজীবী পুরুষোত্তম রায় বর্মণ, আইনজীবী সমরজিৎ ভট্টাচার্য, কৌশিক নাথ ও আরাবিতা দেববর্মা।

অতীতে শুধু ২০১০ সালেই নয় অন্যান্য সময়েও টিপিএস রুলস ৩৪ এ প্রদত্ত ক্ষমতা প্রয়োগ করে রাজ্য সরকার টিপিএস মত টুতে পদোন্নতির ক্ষেত্রে ইন্সপেক্টর ও সুবেদারদের ছাড় দিয়েছে। উচ্চ আদালতের রায়ের পর রাজ্য সরকার কী সিদ্ধান্ত নেয় তা নিয়ে আরক্ষা দপ্তরে অধীর আগ্রহ।


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.