রাজ্যের পরিকাঠামােগত উন্নয়ন সহ সমস্ত অংশের নাগরিকদের সার্বিক কল্যাণে কাজ করছে সরকার : মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, আগষ্ট ১৮, : রাজ্যের পরিকাঠামােগত উন্নয়ন সহ সমস্ত অংশের নাগরিকদের সার্বিক কল্যাণে কাজ করছে সরকার। কোভিড অতিমারীর সময়ে রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিকাঠামাের বিকেন্দ্রীকরণ করা হয়েছে। আজ পুরাতন আগরতলা ব্লকের নবনির্মিত ব্লক কার্যালয় ভবনের উদ্বোধন করে। একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যে সুচিন্তিত ব্যবস্থাপনা ও পরিকল্পনার মাধ্যমে গুণগত দিক বজায় রেখে সময়ের কাজ সময়ে সম্পন্ন করার উপর গুরুত্ব আরােপ করা হয়েছে। সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষাকে গুরুত্ব দিয়ে পরিকাঠামাে উন্নয়ন, অক্সিজেন প্ল্যান্ট, ভেন্টিলেটর, আইসিইউ সহ রাজ্যে স্বাস্থ্য পরিষেবার বিকেন্দ্রীকরণ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি রাজ্যের উৎপাদিত কাঁঠাল ও আনারস অর্থনৈতিক স্বাবলম্বনের পথকে সুগম করছে। গুণগত শিক্ষার সম্প্রসারণে রাজ্যের ১০০টি সরকারি বিদ্যালয়কে সিবিএসই-র আওতায় আনার উদ্যোগ, ১৮টি একলব্য বিদ্যালয় স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রাজ্য সরকার নাগরিকদের অভাব অভিযােগগুলিকে স্বচ্ছ ও দক্ষ প্রশাসনিক নীতির

মাধ্যমে নিষ্পত্তির উদ্যোগ নিয়েছে। এই লক্ষ্যে ধলাই জেলায় পাইলট বেসিসে ১৯০৫ নম্বরটিকে মুখ্যমন্ত্রীর হেল্পলাইন নম্বর হিসেবে চালু করা হয়েছে। এই হেল্পলাইন নম্বরের মাধ্যমে নাগরিকগণ সরকারের বিভিন্ন কাজকর্ম সম্পর্কে পরামর্শ বা প্রতিক্রিয়া জানাতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, উন্নয়নের নিরিখে বিভিন্ন ক্ষেত্রে উল্লেখযােগ্য সাফল্যের জন্য ত্রিপুরা সমগ্র দেশে পরিচিতি পেয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর বিভিন্ন পরিকল্পনার ফলে রাজ্যের উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর হীরা মডেলের সঠিক বাস্তবায়নের মাধ্যমে হাইওয়ে, এক্সপ্রেস ট্রেন, দিল্লির সাথে সরাসরি বিমান পরিষেবার মাধ্যমে উন্নত যােগাযােগ ব্যবস্থা রাজ্যের উন্নয়নের গতিকে আরও বেগবান করছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের বিভিন্ন জনকল্যাণমুখী পরিকল্পনার সুযােগ মানুষের কাছে পৌছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে ব্লকগুলির। বিগত দিনে সঠিক পরিকল্পনার অভাবে বিভিন্ন কাজ সম্পন্ন করতে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়েছিলাে। পুরাতন আগরতলা ব্লক কার্যালয় নির্মাণে আট বছর সময় লেগেছে। কিন্তু বর্তমানে মাত্র এক বছরের মধ্যেই লাইট হাউস প্রকল্পে রাজ্যে এক হাজার ফ্ল্যাট মাথা তুলে দাঁড়াচ্ছে। এখানেই কর্মপদ্ধতি ও দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যে গুণগত দিক বজায় রেখে সময়ের কাজ সময়ে শেষ করার উপরে সরকার গুরুত্ব আরােপ করছে। কোনও

ধরনের রাজনৈতিক রঙ বিচারের উর্ধে উঠে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের সহায়তা প্রকৃত সুবিধাভােগী পর্যন্ত পৌছে দেওয়া হচ্ছে। সবকা সাথ সবকা বিকাশের ভাবনায় উন্নয়নের নিরিখে বিভিন্ন সাফল্যের জন্য ত্রিপুরা আজ গােটা দেশে পরিচিত লাভ করেছে।


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.