ত্রিপুরা থেকেও বিজেপি-কে বিদায় করে ছাড়ব, রাজ্যে গণতন্ত্র ফেরাবই: অভিষেক

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, আগষ্ট ২, : ত্রিপুরায় এসে বিপ্লব দেব সরকারকে হঠানোর হুমকি দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিন আগষ্ট এক সা়বাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, আমার চ্যালেঞ্জ,'লড়াই আজ থেকে শুরু হল। ত্রিপুরার মাটিতে তৃণমূল পা রেখেছে।

তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আজকের তারিখটা লিখে রাখুন। আগামী দেড়বছরের মধ্যে উন্নয়নের সরকার প্রতিষ্ঠা করে ছাড়ব। উন্নয়নের কর্মসূচি ত্রিপুরার দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে দেবে মা-মাটি-মানুষের সরকার। তিনি বলেন, বিজেপি ত্রিপুরাটাকে জল্লাদদের উল্লাস মঞ্চে পরিণত করেছে। সর্বশক্তি দিয়ে আটকাতে হবে।'ত্রিপুরায় আসার সময় তাঁর গাড়িতে হামলার ঘটনায় বিজেপিকে কাঠগড়ায় তোলেন অভিষেক।

তাঁর কথায়,'অতিথি দেব ভবঃ বলে যে ঘটনা ঘটিয়েছে বিজেপি, তা আপনারা দেখেছেন। মা ত্রিপুরেশ্বরীর পুজো করে কর্মসূচি শুরু করতে চেয়েছিলাম। সারা ভারতে প্রসিদ্ধ তীর্থক্ষেত্র ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে যাতে না পৌঁছতে পারি, সেজন্য সবরকম চেষ্টা করেছে। এরাই নাকি হিন্দুত্বের ধারক ও বাহক! গাড়িতে লাঠি দিয়ে মারা হয়েছে। কলকাতা থেকে আসা ৩ নিরাপত্তা আধিকারিক গুরুতর আহত। ১০০ মিটার পর পর রাস্তায় অবরোধ। মায়ের দর্শন তো আমি করেছি। এভাবে আটকানো যাবে না। আমাদের যত তাঁতানো হবে তত শক্তিশালী হব।

তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল লোহার মতো। তমশাচ্ছন্ন ত্রিপুরায় উন্নয়নের সরকার গড়ব।'সাংসদের উপরে হামলা হলে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোথায়? প্রশ্ন তুলেছেন অভিষেক। তিনি বলেন,'সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এই প্রথম অন্য রাজ্যে পা রাখা। সাংগঠনিক কাজ শুরু করেছি ক'দিন আগে। যারা বড় বড় ভাষণ দিয়ে গণতন্ত্র বাঁচানোর কথা বলে তারা আজ কোথায়? তিনি একাধিক বার বলেছেন, এভাবে একজন সাংসদের উপরে হামলা হলে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোথায়? মায়েদের নিরাপত্তা কোথায়? পুলিস নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে। তারা বলছে আমরা কিছু করতে পারব না। তাদের দোষারোপ করব না। স্বৈরাচারী শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই চলবে।'   ত্রিপুরায় সরকার গঠনই যে লক্ষ্য তাও বারেবারে স্পষ্ট করে দিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। তাঁর হুঁশিয়ারি,'সারা দেশে বিজেপিকে কেউ ল্যাজেগোবরে করে হারাতে পারে সেই দলের নাম তৃণমূল কংগ্রেস। নেত্রীর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, বিজেপি নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করে গেলাম, পায়ের তলার ভূমি বাঁচিয়ে নিন। ত্রিপুরাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিচ্ছি। আজ থেকে বিজেপির বিদায়ঘণ্টায় বেজে গেছে। সমাজবিরোধীদের খেলা শেষ। মা-মাটি মানুষের খেলা শুরু।' 


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.