'মন কি বাত' অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী রাজ্য সরকার জনজাতি অংশের মানুষের উন্নয়নে বিশেষ নজর দিয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, জুলাই ২৬, : রাজ্য সরকারের গৃহিত বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মসূচি রূপায়ণের ফলে রাজ্যবাসীর আর্থসামাজিক ব্যবস্থার মান ক্রমশ উন্নতি হচ্ছে। তাছাড়াও রাজ্য সরকার জনজাতি অংশের মানুষের উন্নয়নে বিশেষ নজর দিয়েছে। রাজ্যের জনজাতি অংশের মানুষের আর্থসামাজিক মান উন্নয়নের কথা আজ উঠে এসেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ‘মন কি বাত' অনুষ্ঠানে।

আজ মন কি বাত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উনকোটি জেলার বিক্রমজিৎ চাকমার সাফল্যের কথা দেশবাসীর কাছে তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রী জানান, জনজাতি অংশের মানুষ সব সময়ই কুল চাষ করেন। করোনা অতিমারীর পরবর্তী সময়ে রাজ্যে কলের উৎপাদন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ত্রিপুরার উনকোটি জেলার এক যুবক বিক্রমজিৎ চাকমা কুল চাষ শুরু করে তিনি নিজেই শুধু উপার্জন করেননি, অন্যদেরও কুল চাষে উৎসাহিত করেছেন। বিক্রমজিৎ-এর মত স্বউদ্যোগীকে রাজ্য সরকারও সাহায্য করছে। কুল চাষের সঙ্গে যারা যুক্ত তাদের চাহিদা পূরণ করতে রাজ্য সরকার নার্সারি চাল করেছে এবং তাদের সাহায্য করছে

প্রধানমন্ত্রী মন কি বাতে আরও বলেন, কৃষিতে অভিনবত্ব আসছে। তাই কষির সঙ্গে কুল চায়ের মতো সৃজনশীলতার সাক্ষী হতে পারছি আমরা। প্রধানমন্ত্রী দেশের বিভিন্ন বড় বড় শহরে আধুনিক নির্মাণ কৌশল প্রয়োগের কথা বলতে গিয়ে আগরতলা শহরের কথাও উল্লেখ করেন। প্রধানমন্ত্রী মনকি বাতে বলেছেন। আগরতলায় নিউজিল্যান্ডের টেকনোলজি ব্যবহার করে স্টিল ফ্রেমের সাহায্যে লাইট হাউজ প্রজেক্টে বহুতলা ম্যাচ বাভি বানানো হচ্ছে। এই বাড়িগুলো বড় ধরণের ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত হয়না।

মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব মন কি বাত অনুষ্ঠানে উনকোটি জেলার বিক্রমজিৎ চাকমার কুল চাষের মাধ্যমে রাজ্যের যুবকদের উৎসাহিত করার কথা উল্লেখ করার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এক টুইট বার্তায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানময়ী নরেন্দ্র মোদী বিপরার মতো একটি ছোট রাজ্যের এক কৃষকের সাফল্য সমগ্র দেশ ও বিশ্বের সামনে তুলে ধরেছেন। খালা বলেন, রাজ্যের যুবশক্তি ত্রিপুরাকে আত্মনির্ভর করে তুলতে এগিয়ে এসেছে।


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.