মহামারী করোনার ছোবলে যখন রাজ্যবাসী উদ্বিগ্ন ঠিক তখনই রাজ্য রাজনীতি চঞ্চল হয়ে উঠতে শুরু করেছে

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, সেপ্টেম্বর ৭, : একদিকে বিরোধী সিপিএম অবিরাম বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে কামান দাগাচ্ছে, অন্যদিকে শাসক বিজেপির বিদ্রোহী নেতা বলে রাজনৈতিক মহলে পরিচিত সুদীপ রায় বর্মন মুখ্যমন্ত্রীর গলার কাঁটা হয়ে দাড়াচ্ছেন। এই প্রেক্ষাপটে করোনা জনিত পরিস্থিতি বিশেষ করে চিকিৎসা পরিষেবা থমকেই দাঁড়াতে শুরু করেছে বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও করোনায় আক্রান্ত দের চিকিৎসা চলছে। কিন্তু করোনা চিকিৎসা , বিস্তার রোধে সরকারের ত্ৎপরতা প্রশ্নের মুখে।

সোমবার হঠাৎ করেই বিধায়ক তথা প্রাক্তন স্বাস্হ্যমন্ত্রী সুদীপ রায় বর্মন ও সুশান্ত চৌধুরী জিবি হাসপাতালে যান। সেখানে তাঁরা ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকদের সাথে করোনা রোগীদের চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে কথা বলেন এবং চিকিৎসায় ব্যর্থতার অভিযোগ তুলেছেন।

এটাতো বাস্তব যে জিবি হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা যথাযথ ভাবে হচ্ছে না। চিকিৎসা পরিষেবা যে যথার্থভাবে হচ্ছে না তা স্বাস্হ্য দপ্তর ও স্বীকার করে নিয়েছে। গতকালই দপ্তর ৫ টি চিকিৎসক দল গঠন করে। দপ্তরের তরফে বলা হয়েছে এই পাঁচটি দল করোনা রোগীদের চিকিৎসা করবেন। গতকালই শাসক অনুগত এক স্হানীয় চ্যানেলে বলা হয় যে চিকিৎসক দল করোনা ওয়ার্ডে প্রবেশ করেছেন। অর্থাৎ এতদিন চিকিৎসকরা করোনা রোগীদের ওয়ার্ডে যায়নি।রোগীরা নিজেরাও এতদিন একথা বলছিল। এঁরা বলছিল বা অভিযোগ করছিল ভর্তির দিন তাদের প্রত্যেকের হাতে একটি করে প্যাকেট দেয়া হয় এবং নার্স বলে দিয়েছিল কি ভাবে অষুধ খেতে হবে।কি ছিল তাঁদের পরামর্শ? সকালে একটি করে এন্টাসিড, লিমোলেট । সেই সাথে কফ সিরাফ। সন্ধ্যায়ও লিমোলেট এবং কফ সিরাপ। ব্যস হয়ে গেল। এই ছিল ব্যবস্হাপত্র।শ্বাস কষ্ট হলেও ছিল ক্যাপসুল। যারা সুস্থ হয়ে ফিরেছেন তাদের বক্তব্য তাদের ওয়ার্ডে চিকিৎসক তো দূরের কথা নার্সও যেতেন না।দরজার নীচ দিয়ে অষুধ নাম ডেকে ঠেলে দেয়া হত।খাবারও এভাবেই দেয়া হত। কোভিড কেয়ার সেন্টারেরও সেই একই চিত্র।

এটা ঘটনা করোনা রোগীদের চিকিৎসা যথাযথ ভাবে হচ্ছিলনা। এ কারনেই মুখ্যমন্ত্রী নিজে ছুটে যান জিবিতে এবং ৪ ঘন্টার বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে তাঁর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের পরও কিন্তু স্বাস্হ্য দপ্তর নড়েচড়ে বসেনি। পরিষেবা উন্নত হয়নি। রাজ্যে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

এই যখন চিত্র ঠিক তখনই সোমবার বিদ্রোহী শাসক দলীয় বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন তাঁর একান্ত অনুরাগী বলে পরিচিত বিধায়ক সুশান্ত চৌধুরী কে নিয়ে আচমকা জিবি ছুটে যান। এরা ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকদের সাথে চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে আলোচনা করেন।শুধু তাই নয় এরা করোনা চিকিৎসা নিয়ে ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এই ইস্যু মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব সরকারকে বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে বলে পর্যবেক্ষক মহল মনে করছেন।

প্রসঙ্গত কিছুদিন আগে সুদীপ বাবু কোভিড কেয়ার সেন্টারও পরিদর্শন করেন।এ বিষয়টি নিয়ে ও জল বেশ গড়ায়।

এদিকে করোনা চিকিৎসা ও পরিস্থিতি নিয়ে বিরোধী সিপিএম দলও সরব হয়েছে। তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কামান দাগছেন। এদিকে বিজেপি দল আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে চিকিৎসা পরিষেবার প্রশংসা করেছে।

এই চাপান উতরে আখেরে চিকিৎসা পরিষেবা কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। সুদীপ ও সুশান্ত বলেছেন, দুদিন অপেক্ষা করে তারা ফের জিবিতে যাবেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে তারা যা করার করবেন।


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.