লকডাউনের ছাড় মিলতেই শহর আগরতলায় বাইকের তান্ডব শুরু, সক্রিয় ড্রাগ ব্যবসা চক্র

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, এপ্রিল ২০, : কিছু কিছু ক্ষেত্রে লকডাউনের ছাড় মিলতেই শহর আগরতলায় বাইকের তান্ডব শুরু হয়েছে। সেই সাথে শুরু হয়েছে অবৈধ নেশা জাতীয় পন্যের লাগামহীন দুনম্বরি ব্যবসা। এরা যেন পাগল হয়ে উঠেছে। এক্ষেত্রে এরা অভিনব পন্থা নিয়েছে বলে খবর।

জানাগেছে, ড্রাগ ব্যবসা চক্র এমন যুবকদের ব্যবহার করছে যারা মূল ব্যবসার সাথে মোটা দাগে কামিয়ে নিতে শুরু করেছে।

আজ সকাল থেকেই বেশ কিছু ক্ষেত্রে লকডাউনের বিধিনিষেধের ছাড় কার্যকর হয়েছে। এই ছাড়ের সুযোগ নিয়েই বাইকধারী যুবকের একাংশ ভনভনিয়ে ছুটছে। ট্রাফিক সিগন্যাল মানছে না। ট্রাফিক পুলিশকেও তোয়াক্কা করছে না। এগুলিতো প্রতিবেদকের নিজ চোখে দেখা। যদিও পুলিশ এখন নড়চড়ে বসতে শুরু করেছে। অতিরিক্ত টিএসআর মোতায়েন করেছে গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে। এরা রাস্তায় অনেকটাই নাকাবন্দি করেছে। শুরু করেছে কাগজপত্র তল্লাশি। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু বাইক আটক হয়েছে। ধরে সোজা থানায় নিয়ে যাচ্ছে। হলে কি হবে তান্ডব তো আর কমছে না। এইভাবে চলতে থাকলে সরকার বাধ্য হতে পারে ছাড় উঠিয়ে নিতে। প্রবাহ এই দিকেই যাচ্ছে বলে অনেকেই ধারনা করছেন।

প্রশ্ন হবে কিছু উচ্ছৃঙ্খল যুবকের জন্য তো অন্যরা ভোগতে পারেনা।

লকডাউনে থিতু মেরে ছিল নেশা কারবারীরা। লকডাউন যেন ওদের মাথায় বাজ পড়েছিল। কিন্তু আজ থেকে এরা আবার সক্রিয় হয়ে উঠেছে। ছোট ছোট প্যাকেট এক স্হান থেকে অন্যত্র বয়ে নিয়ে যাচ্ছে। মহারাজগঞ্জ, লেইকচৌমুহনী ও বটতলা এলাকায় এই চক্র বেশি সক্রিয়।

জানাগেছে, অনলাইন ব্যবসা্র ডেলিভারী বয়দের একটি অংশকে এরা হাত করে নেশা সামগ্রী অবাধে পৌঁছে দিচ্ছে। কোন বাধা নেই, পুলিশও এদের আটকায় না। এরা দিব্যি চালিয়ে যাচ্ছে। আরো উদ্বেগজনক হল কিছু যুবক নানা অনলাইন সংস্হার ডেলিভারী বয়ের মার্কামারা পোষাক ও ব্যাগে ছাপ দিয়ে এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে চষে বেড়াচ্ছে। ড্রপ করে দিতে শুরু করেছে ছোট ছোট প্যাকেট। বিনিময়ে নাকি তাৎক্ষণিকভাবে পাচ্ছে দুই, তিন হাজার টাকা। দিব্যি আছে এরা।

পুলিশ যদি রেনডাম তল্লাশি শুরু করে তাহলে এখনি ভেঙে দিতে পারবে এই নেটওয়ার্ক। কুশীলবদের গারদে পুড়তে পারবে।


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.