মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে খবর প্রকাশ করায় ছয় মিডিয়া হাউসের বিরুদ্ধে এফ আই আর, পিযুষের পাল্টা হুশিয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদন

আগরতলা, এপ্রিল ৬, : মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে করোনা ভাইরাস ইস্যুতে গোপাল রায়-এর বিরুদ্ধে পাল্টা মামলার পর প্রশাসনের তরফে এবার কংগ্রেস নেতা সুবল ভৌমিকের বিরুদ্ধে একটি পৃথক এফ আই আর দায়ের করা হয়েছে। গতকাল রাজধানীর পূর্ব থানায় সুবল ভৌমিকের বিরুদ্ধে এফ আই আর করেছে পুলিশ প্রশাসন।

সুবল ভৌমিক সহ আরও ১৩ জনের বিরুদ্ধে এফ আই আর করার মূল কারন হল গোপাল রায়-এর বাড়িতে পুলিশ তদন্তে গেলে সেখানে ১৪৪ ধারা অমান্য করা সহ তাদের বিরুদ্ধে পুলিশী কাজে বাধাদানের অভিযোগ আনা হয়েছে। পাশাপাশি লকডাউন অমান্য সহ ডিজেস্টার ম্যানেজম্যান্ট অ্যাক্ট–এর ৫১ ধারা লঙ্ঘনেরও অভিযোগ আনা হয়েছে।

এছাড়া মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গোপাল রায়-এর এফ আই আর মূলে খবর প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রীকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অভিযোগে রাজধানীর একটি প্রভাতী দৈনিক পত্রিকা আজকের ফরিয়াদ সহ অন্য পাঁচটি ওয়েব পোর্টাল-এর বিরুদ্ধে এফ আই আর করা হয়েছে। এই এফ আই আর-টি দায়ের করেছেন বিজেপি নেতা রাজীব ভট্টাচার্য।

এদিকে, মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গোপাল রায়-এর তরফে যে এফ আই আর-টি পশ্চিম জেলার পুলিশ সুপারের অফিসে জমা করা হয়েছে সেটি এখনো পুলিশ অফিশিয়েলি গ্রহন করেনি।

পুলিশ বলেছে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এভাবে মামলা করা যায় না। এজন্য রাজ্যপালের অনুমোদন চাই। কিন্তু রাজ্যপাল এখনো অনুমোদন দিয়েছেন এমন খবর নেই। উদ্ভত অবস্থার প্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রীকে করোনা ভাইরাস নিয়ে গোজব ছড়ানোর অভিযোগে অভিযুক্ত করতে গিয়ে এক্ষনে উল্টো ফাঁসলেন কংগ্রেস নেতা গোপাল রায়, সুবল ভৌমিক সহ আরও ১৩ জন। এবং একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অভিযোগে ফাসলেন আজকের ফরিয়াদ, ত্রিপুরাইনফোওয়ে, দ্য নর্থ ইস্ট টাইমস, দ্য নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ইনসাইড এন ই, সলমন নিজামি ইত্যাদি পাঁচটি অনলাইন নিউজ ওয়েবসাইট।

প্রসঙ্গত, মুখ্যমন্ত্রী গত ২রা এপ্রিল জিবি হাসপাতালে ক্যামেরার সামনে সাংবাদিকদের কাছে কথোপকথন কালে বলেছিলেন আসামের ১৬টি ও মনিপুরে নাকি ১৯টি করোনা পজিটিভ কেইস ধরা পড়েছে। গোপাল রায় এই বিষয়টিকে ইস্যু করে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে জেনে বোঝে গোজব ছড়ানোর অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার আর্জি জানিয়ে পশ্চিম জেলার এসপি-র কাছে এফ আই আর –এর কপি পাঠান। পরে গোপাল রায়-এর অভিযোগ এবং এফ আই আর মূলে খবর প্রকাশ করে আজকের ফরিয়াদ সহ পাঁচটি ওয়েব পোর্টাল এক্ষনে আসামীর কাঠগড়ায়।

এসম্পর্কে, বলতে গিয়ে কংগ্রেস সভাপতি শ্রী পিযুষ বিশ্বাস বলেছেন যে, গোপাল রায় এর বাড়িতে যেভাবে পুলিশ বিনা সার্চ ওয়ারেন্ট এ প্রবেশ করে গেইট বন্ধ করে তদন্তের নামে বাড়ি তছনছ করেছেন এটা শুধু বেআইনী নয় অগনতান্ত্রিক। শ্রী বিশ্বাস এর অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশেই পুলিশকে এটা করতে হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর এই স্বৈরাচারী কাজকর্ম কংগ্রেস দল কোনভাবেই মেনে নেবে না।

সুবল ভৌমিক সহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে পুলিশ পূর্ব থানায় ১৪৪ ধারা ও ম্যানেজম্যান্ট অ্যাক্ট–এর ৫১ ধারা ভঙ্গের যে অভিযোগ এনেছে তা হাস্যকর বলে তিনি মন্তব্য করেন। শ্রী বিশ্বাস অভিযোগ করেন পুলিশ নিজেই লকডাউনের বিভিন্ন শর্ত প্রতিনিয়ত উলঙ্ঘন করে চলেছে। গোপাল রায় এর বাড়িতেও পুলিশ আইন মেনে সার্চ করতে যায়নি। তাই মামলা হলে ওই পুলিশ আধিকারিকদের বিরুদ্বে আগে হও্য়া উচিত। বিপ্লব দেব যেভাবে পুলিশকে বেআইনী কাজে উৎসাহিত করছে ভবিষ্যতে তার ফল ভালো হবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।


You can post your comments below  
নিচে আপনি আপনার মন্তব্য বাংলাতেও লিখতে পারেন।  
বিঃ দ্রঃ
আপনার মন্তব্য বা কমেন্ট ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষাতেই লিখতে পারেন। বাংলায় কোন মন্তব্য লিখতে হলে কোন ইউনিকোড বাংলা ফন্টেই লিখতে হবে যেমন আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড (Avro Keyboard)। আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ডের সাহায্যে মাক্রোসফট্ ওয়ার্ডে (Microsoft Word) টাইপ করে সেখান থেকে কপি করে কমেন্ট বা মন্তব্য বক্সে পেস্ট করতে পারেন। আপনার কম্পিউটারে আমার বাংলা কিংবা অভ্রো কী-বোর্ড বাংলা সফ্টওয়ার না থাকলে নিম্নে দেয়া লিঙ্কে (Link) ক্লিক করে ফ্রিতে ডাওনলোড করে নিতে পারেন।
 
Free Download Avro Keyboard  
Name *  
Email *  
Address  
Comments *  
 
 
Posted comments
Till now no approved comments is available.